বিস্তারিত

সুপ্রিম কোর্ট থেকে শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় চিরবিদায় খসরুর

আপডেট টাইম : 3 weeks ago
সুপ্রিম কোর্ট থেকে শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় চিরবিদায় খসরুর

নিজস্ব প্রতিবেদক: দ্বিতীয় জানাজা শেষে শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় চিরচেনা অঙ্গন সুপ্রিম কোর্ট থেকে চিরবিদায় নিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু।

 

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) সকাল ১০টায় সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে তার দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

 

জানাজা শেষে বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মতিন খসরুকে রাষ্ট্রীয় গার্ড অব অনার'প্রদান করা হয়।

 

এরপর রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, প্রধান বিচারপতি, স্পিকার, আইন মন্ত্রণালয়, অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি, আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ, আওয়ামী লীগের পক্ষে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষকলীগ, ছাত্রলীগ, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম, আবদুল মতিন খসরু অ্যাসোসিয়েটসসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের পক্ষ থেকে আবদুল মতিন খসরুর কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

 

এর আগে, আবদুল মতিন খসরুর ছেলে আবদুল মোনেম ওয়াসিফ বলেছেন, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও বিচারকগণের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। আপনারা আমার বাবার জানাজায় শরিক হয়ে যে আন্তরিকতা দেখিয়েছেন, তাতে আপনাদের আমি বিশেষ ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

 

তিনি আরও বলেন, উনি আপনাদের সাথে নিয়ে দেশের জন্য কাজ করে গেছেন। আমার বাবা তার কাজের মাধ্যমে বেঁচে থাকবেন। আপনারা আমার বাবার কথা স্মরণ রাখবেন।

 

এ সময় তিনি তার বাবার জন্য সকলের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করে বলেন, আমার বাবার কাছে যদি কারো কোনো পাওনা থাকে, তাহলে আমার চাচা এবং আমরা রয়েছি, আমাদের সাথে যোগাযোগ করবেন। কোনো ভুল-ত্রুটি থাকলে ছেলে হিসেবে আমি সকলের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী।

 

জানাজা অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মো. রুহুল কুদ্দুস কাজল। তিনি আবদুল মতিন খসরুর বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। জানাজায় আবদুল মতিন খসরুর একমাত্র ছেলে আবদুল মোনেম ওয়াসিফ তার বাবা জন্য সকলের দোয়া কামনা করেন।

 

এর আগে সকাল সাড়ে ৮টার দিকে রাজধানীর বকশী বাজার আলিয় মাদরাসা প্রাঙ্গণে আবদুল মতিন খসরুর প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

এরপর আবদুল মতিন খসরুর মরদেহ কুমিল্লার বুড়িচং নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে বাদ জোহর, এরপর ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা সদর, উপজেলার মিরপুরে বাদ আসর তার শেষ জানাজা হবে। জানাজা পৈত্রিক বাড়িতে পারিবারিক কবরস্থানে তার দাফন হওয়ার কথা রয়েছে।

 

বিডি প্রভাত/জেইচ

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য দিন
We'll never share your email with anyone else.