সম্পত্তির জেরে হত্যা করা হয় বৃদ্ধা জমিলাকে, পুত্রবধুর স্বীকারোক্তি

সম্পত্তির জেরে হত্যা করা হয় বৃদ্ধা জমিলাকে, পুত্রবধুর স্বীকারোক্তি

জাহিদ হাসান জিহাদ, গাজীপুর: গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানার কুনিয়া এলাকার বৃদ্ধা জমিলা খাতুন মৃত্যু রহস্য উদঘাটন করেছে গাজীপুর পিবিআই। সম্পত্তির জন্য পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করেন বড় ছেলের সাবেক পুত্রবধু নাসিমা আক্তার লিলি (৪৫)। বৃহস্পতিবার আদালতে হত্যায় জড়িত থাকায় স্বীকারোক্তি দিয়েছেন লিলি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গাজীপুর পিবিআইয়ের পরিদর্শক মোঃ হাফিজুর রহমান জানান, গত ২ ফেব্রুয়ারি দুপুরে কুনিয়ার মৃত আশকর বিএসসি’র স্ত্রী জমিলা খাতুনকে (৬৭) ঘরের ভিতরে আটকে রেখে বেদম মারধর করে মাথা ফাটিয়ে দেয় লিলি ও তার দুই ছেলে। এ সময় তাঁর কাছে থাকা একলাখ টাকাও ছিনিয়ে নেয়া হয়।

পরবর্তীতে ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ছেলে মোঃ শহীদুজ্জামান সুমন বাদি হয়ে বড় ভাই সেলিমের সাকেব স্ত্রী নাসিমা আক্তার লিলি, তার দুই ছেলে ও অজ্ঞাতনামা আরো তিনজনকে আসামী গাছা থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে জেলে ছিলেন লিলি।

থানা পুলিশ হয়ে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব পায় গাজীপুর পিবিআই। ৫ জুলাই কারাবন্দি লিলিকে আদালতের মাধ্যমে দুইদিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা শ্বাশুড়ি হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন।

বিডি প্রভাত/জেইচ