শ্যামনগরে আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড দিয়ে ব্যক্তি মালিকানার জমি দখল

শ্যামনগরে আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড দিয়ে ব্যক্তি মালিকানার জমি দখল

রেজওয়ান উল্লাহ, সাতক্ষীরা: আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড লাগিয়ে ব্যক্তি মালিকানার জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। শ্যামনগর উপজেলার মুন্সীগঞ্জ ইউনিয়নের উত্তর কদমতলায় আব্দুল্লাহর গাজীর আদালতে বিচারাধীন জমিতে ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রধান কার্যালয়ের সাইনবোর্ড দিয়ে এ জমি দখল করেন।

স্থানীয় এবাদুল ও সোনার মোড় গ্রামের দবিরের নেতৃত্বে একদল ভাড়াটিয় লোকজন দিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় প্রকাশ্যে আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড দিয়ে জমি দখল করে ঘর নির্মাণ করেছে। পরে ৯৯৯ ফোন করে প্রশাসনের মধ্যমে দখল কার্যক্রম বন্ধ করে। এ নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

স্থানীয় আমানত আলী বলেন, আব্দুল্লাহ ২৫-৩০ বছর এই জমি দখল করে খায় কিন্তু হঠাৎ করে দেখি আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড দিয়ে দখল করছে। স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুর রশিদ বলেন, আমরা জানি আব্দুল্লাহর দীর্ঘ দিন ধরে দখল করে আসছে। সকালে জানতে পারলাম দবির নামের এক ব্যক্তি দলবল নিয়ে আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড দিয়ে দখল করে নিয়েছে।

মুন্সীগঞ্জ ইউনিয়ান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাজেদ মোড়ল ও যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর সরদার বলেন, আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড দিয়ে ব্যক্তি মালিকানার জমি দখলের বিষয়টা আমরা শুনেছি। আওয়ামী লীগের সাইনবোর্ড দিয়ে ব্যক্তি মালিকানার জমি দখলের ঘটনা দু:খজনক। নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এব্যাপারে জমি দখলকারী এবাদুল জানান, ঐ জমির মালিক আমি। আমার জমি আমাকে উদ্ধার করে দিয়েছে এ জন্য আওয়ামী লীগের অফিস করতে ২ শতক জায়গা দিয়েছি।

অফিস করার জন্য কাকে জমি দেওয়া হয়েছে জানতে চাইলে জেলা আওয়ামী লীগের এক প্রভাবশালী নেতার নাম বলেন। শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্তে কর্মকতা নাজমুল হুদা বলেন, ৯৯৯ ফোন দিয়েছিল। ঘটনাস্থলে পুলিশ যেয়ে কাজ বন্ধ করেছে।

বিডি প্রভাত/আরএইচ