রূপগঞ্জে শেষ মুহূর্তে দূর্গা প্রতিমায় রং তুলির কাজ চলছে

রূপগঞ্জে শেষ মুহূর্তে দূর্গা প্রতিমায় রং তুলির কাজ চলছে

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার সাতটি ইউনিয়ন ও দু’টি পৌরসভায় এবারে ৪৩টি মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। রূপগঞ্জে শেষ মুহূর্তে দূর্গা প্রতিমায় এখন রঙ তুলির কাজ চলছে।

আজ (৫ অক্টোবর) বুধবার মহালয়ার মধ্যদিয়ে দেবী দূর্গার আগমন ঘটবে পৃথিবীতে। পঞ্জিকা অনুযায়ী ১১ অক্টোবর মহাষষ্ঠী তিথিতে দেবী বরণের মধ্যে দিয়ে শুরু হবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজার মূল আনুষ্ঠানিকতা। মাতৃ বন্দনায় মিলিত হবেন ভক্তরা। সেই লক্ষ্যে শিল্পীদের হাতের ছোঁয়ায় ফুটে ওঠছে দৃষ্টিনন্দন প্রতিমা।

ভক্তরা জানান, দেবীদুর্গা আসবে ঘোড়ায় চড়ে। ফিরবেন ঘোড়ায়। ঢাক,ঢোল,শঙ্খধ্বনি আর উলুধ্বনি দিয়ে দেবীদুর্গাকে বরণ করে নেওয়ার অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন ভক্তরা। প্রতিটি পূজা মন্ডপে প্রতিমা বানানোর কাজ শেষ। এখন রং  তুলির আঁচড়ে চলছে শেষ সময়ের প্রস্তুতি।

ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত প্রতিমার কারিগররা ব্যস্ত সময় পার করছেন। নিখুঁত ভাবে মনের মাধুরি মিশিয়ে তারা মনে প্রাণে তৈরী করছেন  প্রতিমা। তারা প্রতিমা তৈরিতে ৬০  হাজার টাকা থেকে ২ লক্ষ টাকা মজুরি নিচ্ছে। কারিগরদের নিপুণ হাতের ছোঁয়ায় তৈরি হচ্ছে দূর্গতিনাশীনি দেবীদূর্গা এবং তার সঙ্গীয়  লক্ষী,সরস্বতী, কার্তিক, গণেশ ও অনিষ্টকারী অশুর সহ বিভিন্ন দেবদেবীর প্রতিমা।

দূর্গার বাহকসহ প্রতিমার শাড়ি ও অলংকার পরানোর কাজও ইতিমধ্যেই শেষ হয়েছে। পূজা মন্ডপ আলোকসজ্জা ও রঙিন কাগজে রাঙানো হচ্ছে প্রতিটি মন্ডপ। প্রতিমা দেখতে এখনই দর্শনার্থীরা মন্ডপে মন্ডপে ঘুরে বেড়াচ্ছে। একই সঙ্গে পূজার পুরোহিত নির্বাচনের কাজও শেষ করছেন মন্ডপ পরিচালনা কমিটি।

করোনা পরিস্থিতির কথা বিবেচনায় প্রতিমা দেখতে আসা দর্শনার্থীদের জন্য হাতধোয়া,মাক্স ব্যবহার ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে আয়োজক কমিটি।

আগামী ১১অক্টোবর মহাষষ্ঠী, এবং ১৫ অক্টোবর বিজয়া দশমী বা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে সমাপ্তি হবে এবারের শারদীয় দূর্গাৎসব। এদিকে পূজা মন্ডপগুলোর নিরাপত্তায় চৌকিদার, আনসার, পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বিজিবি, র‌্যাব ও উপজেলা প্রশাসন টহলে থাকবে।

প্রতিটি মন্ডপে সংসদ সদস্য বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ শাহ্জাহান ভুঁইয়া, উপজেলা প্রশাসন, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ছালাউদ্দিন ভুঁইয়া, নগদ অর্থ প্রদান করেছেন।

রূপগঞ্জ পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি গণেশ চন্দ্র পাল বলেন, আনন্দ উল্লাসের মধ্য দিয়ে এবারেরে দূর্গাৎসব অনুষ্ঠিত হবে। পূজার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে।

পূজা উদযাপন কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দিগেন বিশ্বাস বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসলেই নির্বিগ্নে নিশ্চিন্তে পূজা উদযাপন করা যায়। পূজা উদযাপনে এখানে কোন প্রতিকুলতা নেই।

রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ্ নুসরাত জাহান বলেন, এবারের দূর্গাপূজায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে দূর্গাৎসব করা হবে।

বিডি প্রভাত/জেইচ

Spread the love