রাজধানীতে ৩ ট্রেনে এসেছে সহস্রাধিক কোরবানির পশু

রাজধানীতে ৩ ট্রেনে এসেছে সহস্রাধিক কোরবানির পশু

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানির পশু পরিবহনের জন্য ক্যাটল স্পেশাল সার্ভিস চালু করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। ট্রেনযোগে রাজধানীতে আসতে শুরু করেছে কোরবানির পশু।

রবিবার (১৮ জুলাই) ভোর রাত থেকে এই সার্ভিসের আওতায় ঢাকায় আসতে শুরু করে কোরবানির পশু। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এদিন মোট তিন ট্রেনে ঢাকায় আসে সহস্রাধিক কোরবানির পশু।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহী, নাটোর, জামালপুর ও ময়মনসিংহ থেকে তিনটি ট্রেনে আট শতাধিক গরু ও দুই শতাধিক ছাগল ঢাকায় আসে। ঢাকায় আনতে গরুপ্রতি ভাড়া লাগছে ৫৮০ টাকা। আর ছাগল ও ভেড়ার ক্ষেত্রে ভাড়া লাগছে ২৯৬ টাকা।

দেশের গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়কগুলোতে ঈদের আগের যানজট, ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা ও নানা ভোগান্তি এড়িয়ে কোরবানির পশু ঢাকায় আনতে পারে ব্যবসায়ীরা।

৩ ট্রেনে রাজধানীতে এসেছে সহস্রাধিক কোরবানির পশু

রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, একটি ট্রেনে সর্বোচ্চ ৪০০টি পর্যন্ত পশু পরিবহন করা যাচ্ছে। এর পাশাপাশি খুলনা থেকেও ঢাকায় পশু পরিবহনের জন্য ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। ব্যবসায়ীদের আগ্রহ থাকলে সেখান থেকেও স্পেশাল ট্রেন চালানো হবে।

ঢাকায় কোরবানির পশুর চাহিদা পূরণে গত বছর থেকে রেলওয়ে এই বিশেষ সার্ভিস পরিচালনা করে আসছে। গতকাল শনিবার রাজশাহী স্টেশন থেকে এই ট্রেনের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহ। করোনাকালীন গবাদি পশু ব্যবসায়ীদের চাহিদা অনুযায়ী কোরবানি পশু পরিবহনে রেলের এই স্পেশাল ট্রেন চালু করার উদ্যোগ গ্রহণ করে। 

৩টি ট্রেনে ঢাকায় এলো সহস্রাধিক কোরবানির পশু

এর মধ্যে চাঁপাইয়ের রয়েছে ৮০টি, রাজশাহীর ২০টি ও সিরাজগঞ্জের বড়ালব্রিজ থেকে উঠবে আরও ২০টি গরু। ক্যাটল ট্রেন বিকেল সাড়ে ৪টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ছেড়ে আমনুরা বাইপাস, কাকনহাট, রাজশাহী, উল্লাপাড়া, জয়দেবপুর, ধীরাশ্রম, টঙ্গী ও তেজগাঁও স্টেশনে যাত্রা বিরতি সহ রাত ৩টা ৪৫ মিনিট নাগাদ ঢাকা পৌঁছানোর কথা রয়েছে।

ঢাকায় কোরবানির পশুর চাহিদা পূরণে গত বছর থেকে রেলওয়ে এই বিশেষ সার্ভিস পরিচালনা করছে। 

বিডি প্রভাত/জেইচ