মেহেরপুরের গাংনীতে ভয়াবহ অগ্নীকান্ড

মেহেরপুরের গাংনীতে ভয়াবহ অগ্নীকান্ড

পারভেজ হোসেন, মেহেরপুর প্রতিনিধিঃ মেহেরপুরের গাংনী পৌর শহর বাসস্টান্ডে ৫টি দোকানে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। অগ্নিকাণ্ডের ফলে প্রায় অর্ধ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন দোকান মালিকেরা।

প্রত্যাক্ষদর্শীরা জানায়, রোববার (৭ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টায় সোহাগ বস্ত্রালয় নামের একটি লেপ তোশকের গুদামে আগুনের সুত্রপাত ঘটে। পরে তা ছড়িয়ে পড়ে পাশের আকমল স্টোর, মনিরুল বস্ত্রালয় জিয়া বেডিং ও ঢাকা বেডিংসহ কয়েকটি ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান। অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ পেয়ে গাংনী ও মেহেরপুর ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘন্টা ব্যাপি চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের পাশাপশি মেহেরপুর জেলা ছাত্রলীগ, গাংনী উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করেন।

এসময় আগুনের তাপে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসিফ ইকবাল অনিক অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেওয়া হয়। পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাসিরুল ইসলাম মোহননের নেতৃত্বে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করেন পৌর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ততোক্ষণে পাচঁটি দোকানের মালামাল পুড়ে যায়।

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত আকমল স্টোরের মালিক আকমল হোসেন জানান, পাঁচটি দোকান মিলে অর্ধকোটি টাকার মালামাল পড়ে ভুষ্মিভুত হয়েছে। এতে কয়েকজন দোকান মালিক একেবারে পথে বসে গেছে।

অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন মেহেরপুর-২ গাংনী আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এখালেক,পৌর মেয়র আহম্মেদ আলী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরএম সেলিম, শাহনেওয়াজ। এসময় ক্ষতিগ্রস্থ ব্যাবসায়ীদের সাথে কথা বলে সহযোগীতার আশ্বাস দেন।

জেলা ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক শরিফুল হাসান ভুইয়া বলেন, ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা ঘন্টাব্যাপি চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। এখন পর্যন্ত আগুন লাগার বিষয়ে তেমন কোন উৎস খুজে পাওয়া যায়নি। তবে বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

বিডি প্রভাত/আরএইচ