মাদকসহ বিজেপি নেত্রী পামেলা আটক

মাদকসহ বিজেপি নেত্রী পামেলা আটক

অনলাইন ডেস্কঃ বিজেপি’র যুব মোর্চার পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সম্পাদক ও হুগলি জেলার পর্যবেক্ষক পামেলা গোস্বামীকে কোকেনসহ গ্রেফতার করছে পুলিশ। শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে পামেলাকে কলকাতার নিউ আলিপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার সঙ্গে গ্রেফতার করা হয়েছে বিজেপি নেতা প্রবীর দে-কেও। তারা দুজন একই গাড়িতে করে যাচ্ছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

কলকাতার পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে, শুক্রবার বিকেলে পামেলা নিউ আলিপুরের এনআর অ্যাভিনিউ দিয়ে গাড়ি নিয়ে যাচ্ছিলেন। গাড়িতে প্রবীর ছাড়াও ছিলেন পামেলার নিরাপত্তারক্ষীরা। গোপন খবরের ভিত্তিতে পুলিশ ওই গাড়ি আটকায়। পামেলার কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে ১০০ গ্রাম কোকেন। পুলিশের দাবি, ওই মাদকের বাজারদর প্রায় ১০ লাখ রুপি।

বিজেপি’র সঙ্গে পামেলার যোগাযোগ যদিও খুব পুরনো নয়। রাজ্য রাজ্যনীতিতে অতি পরিচিত মুখ না হলেও গেরুয়া শিবিরে পামেলা একেবারে আনকোরা নন। বিজেপি সূত্রের খবর, ২০১৯ সালে দলে যোগ দিয়েছিলেন পামেলা।

পামেলার সঙ্গে বিজেপি-তে যোগ দিয়েছিলেন টলিউডের অভিনেত্রী রিমঝিম মিত্র। অভিনয়ের সঙ্গে মডেলিংও করেছেন পামেলা। অভিনেত্রী হিসেবে নন, বরং মডেল হিসাবেই তাকে চেনেন বলে জানিয়েছেন বিজেপি’র অনেকে।

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আগে বেশ কয়েক জায়গায় কর্মরত ছিলেন পামেলা। এয়ার ইন্ডিগো’র প্রাক্তন বিমানসেবিকা হিসেবে কাজ করেছেন। একটি বেসরকারি সংস্থার ইন্টেরিওর ডিজাইনার হিসাবে কাজের অভিজ্ঞতাও রয়েছে বলে জানিয়েছেন নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে।

বিমানসেবিকা থেকে অভিনয় বা কর্মজীবনের পর রাজনীতিতে আসা। তবে ১৯ সালে বিজেপিতে যোগদানের পরের বছরই বিজেপি যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক হন তিনি।

তার গ্রেফতার প্রসঙ্গে রাজ্য বিজেপি’র মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেছেন, আমি এখনও স্পষ্টভাবে এই বিষয়ে কিছু জানি না। না জেনে এ বিষয়ে মন্তব্য করা ঠিক হবে না। তবে ওদের ব্যাগে মাদক ছিল, নাকি তা ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে, সেটিও ভাববার বিষয়।

বিজেপি নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, যদি ফাঁসানো না হয়ে থাকে, তাহলে মাদক সরবরাহের অভিযোগে যা শাস্তি হওয়া উচিত, আইন তাই দেবে। সূত্র আনন্দবাজার পত্রিকা।

বিডি প্রভাত/আরএইচ