বসতবাড়ি বিধ্বস্ত হয়ায় সর্বস্বান্ত রাজ্জাকের পরিবার

বসতবাড়ি বিধ্বস্ত হয়ায় সর্বস্বান্ত রাজ্জাকের পরিবার

বুলবুল আহমেদ আকাশ, সিংড়া প্রতিনিধিঃ অল্পের জন্য বেঁচে গেল ঘুমন্ত একটি পরিবার। নাটোরের সিংড়া উপজেলার ১২ নং রামানন্দ খাজুরা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড বিনগ্রামে এমন ঘটনা ঘটেছে। গত ১৩ ফেব্রুয়ারি শনিবার আনুমানিক রাত ২টার দিকে এমন দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাড়ির পাশে থাকা জলাশয় বর্ষার পানিতে তলিয়ে থাকার কারনে মাটি নরম থাকায় বাড়িটি মাটির গভীরে ডেবে যায়। দেয়ালে ফাটল ধরা দেখে ঘটনাটি আন্দাজ করতে পেরে বাড়ির মালিক রাজ্জাক আলী দ্রত পরিবার নিয়ে ঘড় থেকে বেরিয়ে আসে। পরে চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে তাদের সহায়তায় বাড়ির ভেতরে থাকা মালামাল বাহিরে আনতে সক্ষম হয়।

আব্দুর রাজ্জাক(৪৫) বিনগ্রামের মৃত ইসমাইল প্রামাণিকের ছেলে।

ভুক্তভোগী আব্দুর রাজ্জাক বলেন,বিধ্বস্ত ঘরটি তোলার সামর্থ্য নেই তার। তবে পরিবার নিয়ে বসবাসের উপযোগী করে ঘরটি তোলার জন্য নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন রাজ্জাক। কিন্তু অভাবের কারনে ব্যর্থ হচ্ছেন তিনি।

এমনই আত্ননাদ অসহায়ত্বের সাথে গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে প্রকাশ করলেন মোঃ রাজ্জাক আলী। কৃষি কাজ করে দুইজন প্রতিবন্ধী সন্তানসহ চার সন্তানের জনক রাজ্জাক আলীর পরিবার চলে কোন রকমে। প্রতিমাসে তাদের চিকিৎসা করাতে প্রচুর অর্থের প্রয়োজন হয়। প্রবল শীতের মধ্যে স্ত্রী -সন্তান নিয়ে খুব কষ্টের সাথে দূর্বিষহ দিন কাটাচ্ছেন তারা। তাই সরকারের কাছে রাজ্জাকের আকুল আবেদন তিনি যেন দয়াকরে পরিবার নিয়ে বসবাসের একটি সুব্যবস্থা করে দেন।

বিডি প্রভাত/আরএইচ