বরিশালের বানারীপাড়ায় রাতের আধারে প্রাচীর গেট ভেঙ্গে জমি দখলের অভিযোগ

বরিশালের বানারীপাড়ায় রাতের আধারে প্রাচীর গেট ভেঙ্গে জমি দখলের অভিযোগ

বরিশাল জেলা প্রতিনিধিঃ বরিশালের বানারীপাড়া পৌরশহরে রাতের আধারে অন্যের জমিতে অবৈধভাবে ঘর নির্মান করে জমি দখলের  অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বৃহম্পতিবার দিবাগত রাতে বানারীপাড়া পৌরসভার ০৯ নং ওয়ার্ডের বানারীপাড়া ডিগ্রী কলেজ সংলগ্ন পর্ব পাশে এই ঘটনা ঘটে।

জমির মালিকের ভাই  আলমগীর হোসেন অভিযোগে বলেন, তার ভাই আইয়ুব আলী খান ও তার ভাইয়ের স্ত্রী ২০০৩ সালে আলী হোসেন ও তার স্ত্রীর নামের রেকর্ডিয় ২০.৭৪ শতাংশ জমি ক্রয় করে এবং দীর্ঘ ১৮ বছর যাবৎ ভোগ দখল করে আসছে। তাদের ক্রয়কৃত ঐ জমির চারিদিক পাকা প্রাচীর করা এবং লোহার গেট দেয়া রয়েছে। ঐ জমিতে দুটি টিনসেট বিল্টিং তৈরি করে আইয়ুব আলী খান ভাড়া দিয়েছে। ঐ জায়গা আইয়ুব আলী খানের ভাই আলমগীর হোসেন খান দেখাশুনা করেন।

তিনি বলেন, গত বৃহস্পতিবার দিবাগত ভোর রাতে স্থানীয় মোক্তার হোসেন তার ছেলে ওসমান ও নাঈমসহ আরো বেশকিছু লোক মিলে গেটের তালা ভেঙ্গে তাদের দখলীয় ও মালিকানাধীন জমিতে অন্যত্র তৈরি করে রাখা একটি টিনসেট ঘর এনে অবৈধ ভাবে জমি দখল করে।

উল্লেখ্য, মফিজ উদ্দিনের রেকর্ডিয় এস এ ৩০৭ নং খতিয়ানে ৬ আনা ৩ গন্ডা ও এস এ ৯৩ নং খতিয়ানে ৬ আনা তিন গন্ডা জমি হতে বানারীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেক্সের প্রয়োজনে অধিগ্রহন করে কিছু জমি নিয়ে যায়। বাকী থাকে ৪৫.৯৩ শতাংশ জমি। সেই জমি হতে মফিজ উদ্দিনের ছেলে কালু, মোত্তার আলীর কাছে ১১ শতাংশ, মতিয়ার রহমানের কাছে ৬ শতাংশ ও ছালেক ইঞ্জিনিয়ারের কাছ ৮.৫০ শতাংশ জমি (মোট ২৫.৫০)  বিক্রয় করেন।

পাশাপাশি নুরুন্নবীদের কাছে ২১ শতাংশ জমি বিক্রয় করে। নুরুন্নবীর ক্রয়কৃত ২১ শতাংশ জমি ক্রয় করে আলী হোসেন ও তার স্ত্রী। ঐ ২১ শতাংশের মধ্য থেকে সরেজমিনে পাওয়া যায় ২০.৭৪ শতাংশ। আর সেই ২০. ৭৪ শতাংশ জমি আলী হোসেন ও তার স্ত্রীর কাছ থেকে বর্তমান মালিক আইয়ুব আলী ও তার স্ত্রী ক্রয় করে পাকা প্রাচীর দিয়ে টিনসেট ঘর তৈরী করে ভাড়া দেন। যা দেখাশুনা করে তারই ছোট ভাই আলমগীর হোসেন।

রাতের আধারে সন্ত্রাসী কায়দায় ২০ বছরের ভোগদখলীয় জমিতে অবৈধভাবে দখল করে গৃহ নির্মান করে জোড় পূর্বক বসবাস করায় অসহায় ঐ পরিবারটি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সুদৃষ্টি কামনা করেছে।

বিডি প্রভাত/আরএইচ