বঙ্গবন্ধু সেতুর দুই প্রান্তে তীব্র যানজট, ঈদেও দেখেনি এমন যানজট

বঙ্গবন্ধু সেতুর দুই প্রান্তে তীব্র যানজট, ঈদেও দেখেনি এমন যানজট

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিরাজগঞ্জের নলকা সেতুতে কাজ চলায় ও পাটুরিয়া-দৌলদিয়া ফেরিঘাট বন্ধ থাকায় ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

এ‌তে বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের দুই প্রান্তে প্রায় ৩৫ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজ‌টের সৃ‌ষ্টি হ‌য়। যাতে ভোগান্তিতে পড়েছেন লাখ লাখ যাত্রী ও অন্তত ২০ হাজারের বেশি ছোট বড় যানবাহন।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) ভোর থে‌কে সেতুর পশ্চিম প্রান্তের হাটিকুমরুল থেকে পূর্ব প্রান্ত টাঙ্গাইলের এলেঙ্গা পর্যন্ত প্রায় ৩৫ কিলোমিটারজুড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। প‌রে সকাল ৯টার পর টোল আদায় শুরু হ‌লে প‌রিবহন ধীরগ‌তি‌তে চলাচল কর‌ছে।

হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, যানজট একদিকে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থেকে নলকা সেতু হয়ে ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের চান্দাইকোনা পেড়িয়ে বগুড়ার দিকে, ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কের কাছিকাটা ১০ নম্বর সেতু পার হয়ে নাটোরের দিকে ও ঢাকা-পাবনা মহাসড়কেও এই যানজট ছড়িয়ে গেছে। এতে কম করে ৫০ কিলোমিটার মহাসড়কে যানজট রয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, সিরাজগঞ্জের নলকা ব্রিজের এক লেনে কাজ চলমান রয়েছে। তাই ব্রিজ দিয়ে স্বাভাবিক গতিতে গাড়ি চলাচল করতে পারছে না। এছাড়াও পাটুরিয়া-দৌলদিয়া ফেরিঘাট বন্ধ থাকায় পশ্চিমাঞ্চলের সব গাড়ি সেতু রোডে প্রবেশ করেছে।

এতে গতকাল থেকে সিরাজগঞ্জে যানজটের সৃষ্টি হয়। সেই যানজট বৃহস্পতিবার ভোর থেকে টাঙ্গাইল অংশে এসে পৌঁছায়। গাড়ি টানতে না পারায় রাত থেকে কয়েক দফায় টোল আদায় বন্ধ রাখে সেতু কর্তৃপক্ষ। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যান চলাচল স্বাভাবিক হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

যাত্রীরা বলছেন, ঈদের মহাসড়কেও এমন যানজট ও দুর্ভোগ কখনো দেখিনি। যাত্রীরা সবাই ভোগান্তিতে আছেন। এছাড়াও দীর্ঘ সময় মহাসড়কে আটকা পড়ে যাত্রীদের খুদা নিবারণে একমাত্র ভরসা এখন মহাসড়কের অস্থায়ী ফেরিওয়ালারা। কিন্তু এই যানজটের ভোগান্তি থেকে আপাতত রক্ষা পাওয়ারও কোনও আশা দেখছেন না তারা।

ও‌সি জানান, ভোর থে‌কেই বঙ্গবন্ধু সেতু‌পূর্ব টোলপ্লাজায় উত্তরবঙ্গগামী লে‌নে টোল আদায় বন্ধ ছিল। এ‌তে ঢাকা-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়‌কে গা‌ড়ির চাপ বে‌ড়ে গি‌য়ে যানজটের সৃ‌ষ্টি হয়। ত‌বে সকাল ৯টার পর টোল আদায় শুরু হ‌লে ধীরগ‌তি‌তে প‌রিবহন চলাচল কর‌ছে।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) নলকা সেতুটি ভেঙে গেলে সে দিন রাত থেকে যানজট শুরু হলেও গতকাল রাতে তা তীব্র আকার ধারণ করেছে। এতে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থেকে উত্তরবঙ্গের সিরাজগঞ্জের মহাসড়কের মোট ৫০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে এই যানজটে ভোগান্তিতে পড়েছে হাজার পরিবহন ও লাখো যাত্রীরা।

বিডি প্রভাত/জেইচ

Spread the love