নানার বাড়িতে বেড়াতে এসে মাদ্রাসা ছাত্রের আত্মহত্যা   

বাবার বাড়ী যেতে না দেয়ায় অভিমানে গৃহবধূর আত্নহত্যা

বিশ্বনাথ পাল, নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীর রায়পুরায় নানার বাড়িতে বেড়াতে এসে গলায় ফাঁস দিয়ে আকরাম হোসেন (২২) নামে এক মাদ্রাসা ছাত্র আত্মহত্যা করেছে।

রোববার (৩ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার পলাশতলী ইউনিয়নের পলাশতলী গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

নিহত আকরাম হোসেন একই ইউনিয়নের শাউড়াতলী গ্রামের মোশারফ হোসেনের ছেলে। দুই ভাই ও দুই বোনের মধ্যে সে সবার বড়। সে নরসিংদী বৌয়াকুড় দত্তপাড়া একটি মাদ্রাসার এফতা বিভাগের ছাত্র ছিল।

নিহতের চাচাতো মামা আব্দুল জলিল জানান, শনিবার (২ জানুয়ারী) বিকেলে বাড়ির সবজি বিক্রি করে নানা বাড়িতে আসে আকরাম। পরে রাতের খাওয়া শেষে সে শুয়ে পড়ে। পরদিন সকালে তার মামী খাবার খাওয়ার জন্য ডাকলে তার রুম থেকে কোন উত্তর না আসায় তার মামাতো ভাই অপর পাশের রুমে মইয়ের মাধ্যমে উপরে উঠে আকরামের ঝুলন্ত মৃতদেহটি দেখতে পায়।

পরে তার মামা ও পার্শ্ববর্তী লোকজন দরজা ভেঙ্গে তার ঝুলন্ত দেহটিকে মাটিতে নামিয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ এসে মরদেহটি উদ্ধার করে তার সুরতহাল সম্পূর্ণ শেষে লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে।

রায়পুরা থানার উপ-পরিদর্শক এস.আই রেজাউল করিম জানান, আমরা সকালে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পৌঁছে লাশটির সুরতহাল তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করি। ময়নাতদন্ত শেষে মৃতের আসল কারন জানা যাবে।

বিডি প্রভাত/আরএইচ

Spread the love