নড়াইলে জমির সীমানার কাটাতারের বেড়া ভেঙ্গে ফেলার অভিযোগ

নড়াইলে জমির সীমানার কাটাতারের বেড়া ভেঙ্গে ফেলার অভিযোগ

মির্জা মাহামুদ হোসেন রন্টু, নড়াইল: নড়াইলে হাজী মোঃ আতিয়ার রহমানের জমির সীমানার কাটাতারের বেড়া ভেঙ্গে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে সদর উপজেলার আওড়িয়া ইউনিয়নের নাকশী গ্রামে।

হাজী মোঃ আতিয়ার রহমান অভিযোগ করে বলেন, সকালে আমার বাড়ির পশ্চিম পাশের ক্রয়কৃত জমিতে যেয়ে দেখতে  পাই জমির সিমানায় কাটাতারের বেড়া ও পিলার ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, প্রতিবেশি নবীর হোসেনের দুই সন্তান মোঃ নজরুল ইসলাম (৩০) মোঃ নাজমুল ইসলাম ও আবু তালেবের স্ত্রী মীনা বেগম (৩০) আমার কমলাপুর মৌজার ১৫২৬,২৯২৯,২৯২৮ খতিয়ানের ৫১৬৬ দাগের মোট ৩১ শতক জমির সিমানায় কাটাতারের বেড়া পিলার ভেঙ্গে অপসারন করে ফেলেছে। কারন এই জমি দাবি করে তারা আমার বিরুদ্ধে ৩টি (মামলা নং-২৪৯/২০১৯ ও ০৯/২০২০) মামলা করে হেরে গিয়েছে। এবং জবর দখল করে জমি নেওয়ার জন্য এই অপচেষ্টা করতেছে।

সরেজমিনে গেলে প্রতিবেশি মফিজ সিকদার বলেন,ওই জমি হাজী মোঃ আতিয়ার রহমান ক্রয় করেছে এবং কাগজপত্র সঠিক আছে বলেই ৩টি মামলায় জিতেছে এবং ভোগদখল করছে।

মোঃ লিটন মোল্য বলেন, আদালতের রায়ের পরেই হাজী মোঃ আতিয়ার রহমান তার জমির সীমানায় কাটাতারের বেড়া দিয়েছে। সেই বেড়া কতিপয় দূস্কৃতিকারী ভেঙ্গে অপসারন করে আদালতের অবমাননা করেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে, মোঃ নজরুল ইসলাম, মোঃ নাজমুল ইসলাম, ও মীনা বেগম ভেঙ্গে ফেলার কথা অস্¦ীকার করে বলেন, এই জমি নিয়ে শালিস হয়েছে মিমাংসা না হওয়ায় মামলা চলতেছে। আরো বলেন, অন্যায়ভাবে এস আই আসলামকে এনে জোরপূর্বক ভাবে জমিতে বেড়া দিয়েছে। আমরা দূর্বল তাই আ্ইনের আশ্রয় নিয়েছি।

এ বিষযে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ ইলিয়াস হোসেন বলেন, আমরা কোন অভিযোগ পাইনি অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

বিডি প্রবাত/জেইচ