তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন শক্তিশালীকরণে শপথ নিল ভোলার ডরপ ইয়ুথ ফোরাম

তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন শক্তিশালীকরণে শপথ নিল ভোলার ডরপ ইয়ুথ ফোরাম

আর জে শান্ত, ভোলা: তারুণ্যে ভরপুর বাংলাদেশই আমাদের সম্পদ। অথচ এই তরুণদের একটা বড় অংশ এখন ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্যের নেশায় পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। আর তাই এই তরুণ প্রজন্মকে ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্যের স্বাস্থ্যক্ষতি থেকে বাঁচাতে এবং ভালো কাজে অনুপ্রাণিত করতে দরকার তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন শক্তিশালীকরণের প্রক্রিয়ায় তাদেরকে অন্তর্ভুক্ত করা।

এ লক্ষ্যে বাংলাদেশের প্রথম সারির বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ডরপ্ গত শনিবার ৯ অক্টোবর, ২০২১ তাদের ভোলা জেলা অফিসে একদল তরুণদের নিয়ে ‘তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন শক্তিশালীকরণে যুব সমাজের ভূমিকা’ বিষয়ক একটি অরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠান আয়োজন করে।

উক্ত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী সকল তরুণদের ডরপ ও সিটিএফকে- এর পক্ষ থেকে ধূমপান ও তামাকের স্বাস্থ্য ও অর্থনৈতিক ঝুঁকি, তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের বিভিন্ন দিক এবং এ আইন শক্তিশালীকরণে তাদের ভূমিকা বিষয়ে ধারণা প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক র্ডপ ভোলার অ্যাডভোকেসি অফিসার তরুণ কান্তি দাশ বলেন, “বাংলাদেশ ক্যান্সার সোসাইটির একটি গবেষণায় দেখা যায়, তামাক ব্যবহারজনিত রোগে দেশে প্রতিবছর প্রায় ১ লক্ষ ২৬ হাজার মানুষ অকালে মৃত্যু বরণ করে যা আমাদের জন্য বিরাট চিন্তার বিষয়।

বাংলাদেশের জনসংখ্যার একটা বড় অংশ তোমাদের মতো কিশোর-তরুণ বয়সের। তোমরাই এক সময় এ দেশ ও সমাজের প্রতিনিধিত্ব করবে। আমি আশা করবো তোমরা এই অরিয়েন্টেশন সেশনের বার্তা নিয়ে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন শক্তিশালীকরণে বিভিন্ন কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করবে এবং অন্যান্যদের এই কার্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত করে এই সামাজিক আন্দোলন বেগবান করবে।

ডরপ ইয়ুথ ফোরামের চ্যাম্পিয়ন আর জে হারুন হাওলাদার শিমুল বলেন, আমাদের যুব সমাজের একটি অংশ নানা ধরনের সামাজিক ও নৈতিক অবক্ষয়ে হারিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু তার মাঝেও বেশ কিছু সংগঠন যুব সমাজকে সমাজ উন্নয়নমূলক বিভিন্ন কার্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত করে তাদের পথ দেখাচ্ছে। ডরপ কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ আমাদের এই সামাজিক আন্দোলনে যুক্ত করার জন্য।

আমরা আমাদের সর্বোচ্চ মেধা এবং সামর্থ্য দিয়ে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন শক্তিশালীকরণের পক্ষে কাজ করে যাবো।” ডরপ্ আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী ইয়ুথ গ্রুপের অন্যান্য সদস্যরাও তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন শক্তিশালীকরণে অবদান রাখতে বিভিন্ন জনসচেতনতামূলক সামাজিক কার্যক্রম করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, উক্ত অনুষ্ঠানে ভিডিও বার্তার মাধ্যমে ইয়ুথ ফোরামের সদস্যদের বিভিন্ন দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্য প্রদান করেন ডরপ টোব্যাকো কনট্রোল প্রজেক্টের প্রোগ্রাম কো- অর্ডিনেটর রুবিনা ইসলাম এবং মিডিয়া ও অ্যাডভোকেসি কো-অর্ডিনেটর আরিফ বিল্লাহ।

বিডি প্রভাত/জেইচ

Spread the love