টিকেট কিনেও দেশে ফেরা হলো না সালাউদ্দিনের, করোনা পজিটিভ থাকায় আরব-আমিরাতে দাফনের সিদ্ধান্ত

টিকেট কিনেও দেশে ফেরা হলো না সালাউদ্দিনের, করোনা পজিটিভ থাকায় আরব-আমিরাতে দাফনের সিদ্ধান্ত

অনলাইন ডেস্কঃ দেড় সপ্তাহ ধরে শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রবাসী সালাউদ্দিন আলমগীর (৩৫)। দুই দফা করোনা পরীক্ষা করলেও রিপোর্ট নেগেটিভ আসে তার। তবুও সুস্থ না হয়ে ওঠায় দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। এজন্য বিমানের টিকিটও কেনেন সালাউদ্দিন।

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় রাত ১টার ফ্লাইট ধরে দেশে ফেরার কথা ছিল তার। তবে ওই দিন সকালে হঠাৎ সালাউদ্দিনের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। তাকে খলিফা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে করোনা পরীক্ষায় এবার তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর রাত ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সালাউদ্দিন।

ভাগ্য বিড়ম্বনায় তার আর দেশের মাটিতে ফেরা হলো না। করোনা পজিটিভ থাকায় মরদেহ দেশে না পাঠিয়ে তাকে আরব-আমিরাতে দাফনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। আমিরাতে বসবাসরত তার আত্মীয় জাসেদুল ইসলাম শনিবার এসব তথ্য জানান।

মরহুম সালাউদ্দিন আলমগীর দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে আজমানে কর্মরত ছিলেন। তার দেশের বাড়ি চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায়। তিনি গড়দুয়ারা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মৃত এ কে এম শাহাবুদ্দীনের ছেলে। একমাস আগে দেশে ছুটি কাটিয়ে আমিরাতে ফিরেছিলেন সালাউদ্দিন। তিনি দুই কন্যা সন্তানের জনক।

বিডি প্রভাত/আরএইচ