চোর থেকে ছাত্রদলে, মাদক কারবারি হয়ে শ্রমিক লীগে

চোর থেকে ছাত্রদলে, মাদক কারবারি হয়ে শ্রমিক লীগে

নিজস্ব প্রতিবেদক: এক সময়ের ছিঁচকে চোর থেকে তেজগাঁও থানা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন মিয়া। ক্ষমতার পালা বদলে তিনি হয়ে উঠেন শ্রমিক লীগের নেতা। তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানা এলাকায় ইয়াবা ব্যবসার নেটওয়ার্কও গড়ে তোলেন। 

জানা গেছে, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকার ২৪ নম্বর ওয়ার্ড শ্রমিক লীগের প্রস্তাবিত কমিটিতে সাংগঠনিক সম্পাদক হিসাবে মামুন মিয়ার নাম প্রস্তাব করা হয়েছে। এ নিয়ে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। 

এ ব্যাপারে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানা এলাকার ডিএনসি’র ২৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শফিউল্লাহ শফি বলেন, মামুন ছাত্রদলের নেতা হয়েও চাঁদাবাজি ও মাদক ব্যবসা অব্যাহত রাখতে শ্রমিক লীগের নাম ভাঙ্গিয়ে দলের নেতাকর্মীদের ভয় দেখাচ্ছে। তার বিরুদ্ধে পুলিশ ও র‌্যাবে অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) ওয়াহিদুর রহমান বলেন, মাদক কারবারি যেই হোক তাকে আইনের আওতায় আনা হবে। সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে তথ্য যাচাই-বাছাই করে গ্রেফতার করে থাকি। মাদক কারবারির বিষয়ে আমরা জিরো টলারেন্স। তাদের ন্যূনতম ছাড়ও দেয়া হবে না।

এ ব্যাপারে মামুন মিয়া বলেন, আমি অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলি তাই আমার নামে মাদক ব্যবসা, ছিনতাই-চুরির অভিযোগ করা হয়েছে। মূলত যারা ওই সব অপরাধ করে থাকে তারাই এমন অভিযোগ করেছে। মাদক ব্যবসার সাথে আমার কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই।

বিডি প্রভাত/জেইচ

Spread the love