চিলমারীতে বিএনপির সংবাদ সম্মেলন

চিলমারীতে বিএনপির সংবাদ সম্মেলন

জাহিদ আল হাসান, কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামের চিলমারীতে বিএনপির সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার বিকেল ৩ টায় উপজেলা দলীয় কার্যালয়ে জনাকীর্ন নেতাকর্মীদের কে নিয়ে দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন সরকার শিরিন লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।

লিখিত বক্তব্যে জানান, গত ২০.০২.২১ তারিখে চিলমারীতে স্বেচ্ছাস্বেক দলের কর্মসূচিকে পন্ড করার জন্য চিলমারী বিএনপির একাংশ আওয়ামী মদদপুষ্ঠ নেতা আবু হানিফা, সাদাকত হোসেন সাজু, ফজলুল হক ও আনোয়ার হক বাবলু গং এর প্ররোচনায় কতিপয় ভারাটে সন্ত্রাসীরা দলীয় কার্যালয়ে ভাংচুর করে।

অপরদিকে রংপুর বিভাগীয় নেতাদের অংশগ্রহনের জন্য জাতীয় নির্বাহী কমিটির রংপুর বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাাদক আব্দুল খালেক মাটিকাটা পাম্পের মোড় এলাকায় পৌঁছালে স্বেচ্ছাসেবক দলের নামধারী সন্ত্রাসী আশরাফুল, মতিন, জোবাইদুল তাদেরকে লাঞ্চিত করার চেষ্টা করলে সন্ত্রাসীদেরকে উপস্থিত জনতা আটক করে গনধোলাই দিলে তারা ঘটনাস্থলেই হানিফ গংদের মাধ্যমে প্রাপ্ত ৩৫ হাজার টাকার বিনিময়ে এ হামলার নির্দেশের কথা স্বীকার করে।

উক্ত হানিফ গং বিএনপি চিলমারী উপজেলা শাখার সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বারী সরকারকে জড়িয়ে মিথ্যা দোষারোপ চালাতে থাকে এবং তার বিরুদ্ধে মিথ্যা সাংবাদিক সম্মেলন করে সত্যকে মিথ্যা দিয়ে চাপা দেয়ার চেষ্টা করে। সংবাদ সম্মেলনে হানিফ গং কর্তৃক প্রচারিত সাংবাদিক সম্মেলনের প্রতিটি শব্দ ঘৃণার সাথে প্রত্যাখান করে দ্রুত হানিফ গং সহ সকল আওয়ামী মদদ পুষ্ঠদেরকে বিএনপি থেকে বহি:স্কার করে চিলমারীর মূল দলসহ অংগ সংগঠন সমুহকে ত্যাগী নেতাকর্মীদের মাধ্যমে গঠন করার জন্য জেলা ও কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মাহমুদুল হাসান, কৃষকদলের সভাপতি আবু ওবায়দুল হক খাজা, সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান, যুবদল সহসভাপতি আবু সাঈদ হোসেন পাখি, থানাহাট ইউনিয়ন শাখার সভাপতি অসিম আলী,সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক, যুবদল সাংগঠনিক সম্পাদক তাইবুর রহমান, ছাত্রদল আহবায়ক ইয়াকুদ সাদ্দাদ স্বাক্ষর প্রমুখ। 

বিডি প্রভাত/জেইচ