কুড়িগ্রামে ছেলের নির্যাতনে ঘর ছাড়া মা!

কুড়িগ্রামে ছেলের নির্যাতনে ঘর ছাড়া মা!

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের চিলমারীতে ছেলের নির্যাতনে রওশন আরা (৬৫) নামে এক মা ঘর ছাড়া হয়েছেন। ছেলের নির্যাতনে গত ১ সপ্তাহ চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল ছাড়া পেলেও ঘরে ফিরতে পারেননি তিনি।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, উপজেলার রমনা ইউনিয়নের শরীফের হাট হাজীপাড়া এলাকার মৃত আঃ খালেকের স্ত্রী রওশন আরা বেগম স্বামীর রেখে যাওয়া ভিটেয় দিনাতিপাত করে আসছিলেন। দীর্ঘদিন থেকে স্বামীর দেয়া জমিটুকু ফেরত চান ছেলে রবিজুল ইসলাম। এ নিয়ে প্রায়ই মায়ের গায়ে হাত তুলতেন। এমনকি মায়ের চলাচলের পথও বন্ধ করে দেন।

গত ১০ জুলাই এ নিয়ে মা ছেলের কথা কাটির এক পর্যায়ে মাকে লক্ষ করে ধারালো দা ছুড়ে মারেন। এ সময় ছেলের ছুড়ে মারা দায়ের আঘাত কপালে লাগলে গুরুতর অসুস্থ হন তিনি। পরে স্থানীয়রা তাকে চিলমারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়।

ষাটোর্ধ বৃদ্ধা রওশন আরা বলেন, ছেলের নির্যাতনের ভয়ে ঘরে ফিরতে পারছেন না তিনি। জমি ফেরতের জন্য বিভিন্ন ধরনের হুমকি ধামকি দিচ্ছে। এমনকি জমির জন্য ওরা আমাকে মেরেও ফেলতে পারে। থানায় অভিযোগ করেছি কিন্তু এখনো প্রতিকার পাইনি

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ছেলে রবিজুল ইসলামের বক্তব্য পাওয়া না গেলেও আরেক ছেলে রেফাজুল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমার বড় ভাই সব সময় মায়ের সাথে খারাপ ব্যাবহার করে এবং মারতে আসে।

চিলমারী থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দু’পক্ষই অভিযোগ করেছেন তদন্ত শেষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডি প্রভাত/জেইচ