কুড়িগ্রামে ছাত্রলীগের উদ্যোগে সড়ক মেরামত

কুড়িগ্রামে ছাত্রলীগের উদ্যোগে সড়ক মেরামত

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামে জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে বন্যায় ভেঙে যাওয়া একটি সংযোগ সড়ক মেরামত করা হয়েছে। ধরলার প্রবল স্রোতে কয়েকদিন আগে সদর উপজেলার শুলকুরবাজারে সংযোগ সড়কটি ভেঙে গেলে যাত্রাপুর, পাঁচগাছি, ঘোগাদহ, বেগমগঞ্জ ও ভোগডাঙা-এই ৫টি ইউনিয়নের মানুষ যাতায়াতের ভোগান্তিতে পড়ে।

পণ্য আনা নেয়া ও মানুষ চলাচল করতে হতো নৌকার সাহায্যে। এতে প্রতিদিন হাজারো মানুষ ভোগান্তিতে পড়ে। জনভোগান্তি কমাতে এবং গুরুত্বপূর্ণ কুড়িগ্রাম-যাত্রাপুর সড়কটি সচল রাখতে জেলা ছাত্রলীগের কর্মীরা বৃহস্পতিবার বালুর বস্তা ফেলে সড়কটি মেরামত করে দেয়।

এসময় জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজু আহমেদর সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক  আশিকুর রহমান, সাবেক সহ সভাপতি ফিরোজ শাহী, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য আশরাফুল ইসলাম, কুড়িগ্রাম পৌর ছাত্রলগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ ও সোলায়মান গাদ্দাফিসহ ছাত্রলীগের কয়েকশ কর্মী এই সড়ক মেরামত কাজে অংশ নেন।

এসময় ছাত্রলীগের নেতা- কর্মীরা বালুর বস্তা কাঁধে নিয়ে ভাঙা সড়কটি মেরামত কাজে অংশ নেন। সেখানে প্রায় ৫শ বালু ভর্তি বস্তা ফেলা হয়।ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের উদ্যোগে ভাঙা সড়কটি মেরামত হওয়ায় খুশি স্থানীয় মানুষ।

শুলকুর বাজারের ব্যবসায়ী মেহেরুল করিম জানান, বন্যায় বাইপাস সড়কটি ডুবে যাওয়ায় মানুষ চলাচল ও পণ্য আনা নেয়া কঠিন হয়ে গিয়েছিল। ছাত্রলীগের উদ্যোগে রাস্তা মেরামত হওয়ায় জনদুভোর্গ অনেক কমে যাবে।

স্থানীয় স্কুল শিক্ষক লিটন মিয়া বলেন, ছাত্র সংগঠনের এ ধরণের গঠনমুলক কাজ অবশ্যই প্রশংসার দাবী রাখে।

এ সময় জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজু আহমেদ বলেন, শুলকুর বাজারে একটি সেতুর কাজ দীর্ঘদিনেও শেষ না হওয়ায় বাইপাস সড়কটি দিয়ে মানুষ চলাচল করতো। দুই লাখ মানুষের চলাচলের একমাত্র সড়কটি বন্যায় ভেঙে যায়। সড়কটি মেরামত ও সংস্কার কাজে অংশ নিয়েছে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, ছাত্রলীগের কর্মীরা কৃষকের ধান কাটা, মাস্ক বিতরণসহ নানা ধরণের গঠনমুলক ও মানবিক কাজে অংশগ্রহন করছে।

বিডি প্রভাত/আরএইচ