কিশোরীকে অপহরণের পর ২ মাস আটকে রেখে ধর্ষণ, ধর্ষক আটক

কিশোরীকে অপহরণের পর ২ মাস আটকে রেখে ধর্ষণ, ধর্ষক আটক

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ময়মনসিংহের তারাকান্দায় এক কিশোরীকে অপহরণের পর আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে মো. রুবেল মিয়া (৩০) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রুবেল ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার শিবপুর গ্রামের মৃত আজিম উদ্দিন ছেলে। সম্পর্কে রুবেল ওই কিশোরীর খালু।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়। এর আগে বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) মানিকগঞ্জ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে রুবেলের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে নারায়নগঞ্জ থেকে ভুক্তভোগী কিশোরীকে উদ্ধার করে পুলিশ।

তারাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের জানান, গত বছরের ২০ ডিসেম্বর ওই কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ। ঘটনার প্রায় দুই মাস পর গত ১৫ ফেব্রুয়ারি থানায় মামলা করেন কিশোরীর বাবা। মামলার পর পুলিশ তাকে গ্রেফতার এবং কিশোরীকে উদ্ধার করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আব্দুস সবুর জানান, রুবেল গত বছরের অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি সময়ে তারাকান্দার ডাকুয়া ইউনিয়নে বিয়ে করেন। বিয়ের দুই মাসের মাথায় তার স্ত্রীর বড় বোনের মেয়েকে বিয়ের প্রলোভনে অপহরণ করে। বিষয়টি কিশোরীর পরিবার গোপনের মীমাংসার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়ে থানায় মামলা করেন।

এসআই আরও বলেন, গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রুবেল অপহরণ ও ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওই কিশোরীর ফরেনসিক পরীক্ষা করা হয়েছে।

বিডি প্রভাত/আরএইচ