কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী আটক

কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধী আটক

অনলাইন ডেস্ক: ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর কন্যা ও কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে আটক করেছে উত্তর প্রদেশ পুলিশ।

সোমবার (৪ অক্টোবর) সকালে রাজ্যের লখিমপুর খিরিতে চার কৃষককে হত্যা’র প্রতিবাদে এবং নিহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে সেখানে যাচ্ছিলেন তিনিসহ দলের অন্য নেতারা। এ সময় এই নেত্রীকে আটক করেছে রাজ্য পুলিশ। খবর প্রকাশ করেছে এনডিটিভি।

প্রাথমিকভাবে উত্তরপ্রদেশ কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদককেও গৃহবন্দি করে রেখেছিল পুলিশ। কংগ্রেস বলছে, রবিবার রাতে লখনউ থেকে লখিমপুর খিরির উদ্দেশ্যে রওনা হন কংগ্রেস নেতারা। এক পর্যায়ে পুলিশ গাড়ি আটকানোর পর পায়ে হেঁটেই লখিমপুরের দিকে রওনা হন প্রিয়াঙ্কা।

দফায় দফায় তার লখিমপুর যাওয়ার পথে বাধা দেওয়া হয়। আটকে দেওয়া হয়েছে কনভয়। হরগাঁও থেকে গ্রেফতার করা হয় প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে। তবে পুলিশের লখনউ থেকে আটক করা হয়েছে প্রিয়াঙ্কাকে।

প্রায় পাঁচ ঘণ্টা পুলিশের সঙ্গে বচসার পর সোমবার ভোর ৫.৩০ মিনিটে তাকে হরগাঁও থানা এলাকায় আটক করে পুলিশ। তারপরে প্রিয়াঙ্কাকে সীতাপুর জেলার একটি গেস্ট হাউসে নিয়ে যাওয়া হয়। ইউপি কংগ্রেস টুইট করে এই ঘটনার কথা জানিয়েছে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্র ও রাজ্যের উপ-মুখ্যমন্ত্রী কেশব মৌর্যর সফরের বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ করছেন এলাকার কৃষকরা। অভিযোগ উঠেছে, এ সময় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর কনভয়ের একটি গাড়ি (গাড়িটিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্রর ছেলে ছিল বলে অভিযোগ) দুই কৃষককে পিষে মেরে ফেলেছে। খবরটি ছড়িয়ে পড়ার পরই উত্তেজনা ও সংঘাত ছড়িয়ে পড়ে।

লখিমপুর খিরির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অরুণ কুমার সিং জানিয়েছেন, সহিংসতায় চার কৃষকসহ মোট আট জন মারা গেছেন। এদিকে, কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী অজয় মিশ্র দাবি করেছেন, তার ছেলে কনভয়ে ছিল না, আর যদি থাকতো তাহলে কৃষকরা তাকে পিটিয়ে মেরে ফেলতো।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, লখিমপুরের ঘটনায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্রের ছেলেসহ উত্তর প্রদেশের কয়েকজন সিনিয়র কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে।

রাজ্যমন্ত্রী সিদ্ধার্থ নাথ সিং বলেন, ঘটনাটিতে আমরা সিরিয়াসভাবে নিয়েছি এবং তদন্ত চলছে। মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, জড়িত ব্যক্তিরা অবশ্যই শাস্তি পাবেন। কিন্তু বিরোধীরা এটিকে রাজনৈতিকভাবে ভিন্ন খাতে নেওয়ার চেষ্টা করছে।

বিডি প্রভাত/জেইচ

Spread the love