আল্লাহর সন্তুষ্টির আশায় সারাদেশে চলছে পশু কোরবানি

আল্লাহর সন্তুষ্টির আশায় সারাদেশে চলছে পশু কোরবানি

নিজস্ব প্রতিবেদক: মহান আল্লাহর অনুগ্রহ লাভের উদ্দেশ্যে পশু কোরবানির মধ্য দিয়ে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা অন্যতম বৃহৎ এই ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা উদযাপন করছেন। 

যদিও করোনা মহামারির কারণে গত বছরের মতো এবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে পালন করতে হচ্ছে। ঈদের নামাজের পরই আল্লাহর সন্তুষ্টির আশায় পশু কোরবানি করতে হয়।

এরই ধারাবাহিকতায় ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা ঈদের নামাজের পর আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশে পশু কুরবানি দিচ্ছেন। প্রতিবছরের মতই পশু জবাইয়ের নির্ধারিত স্থান ছাড়াও নগরীর বিভিন্ন অলিগলির সড়কে, গ্যারেজে ও ফাঁকা জায়গায় পশু কোরবানি করতে দেখা গেছে।

পবিত্র কোরআনের বর্ণনা অনুযায়ী, চার হাজার বছর আগে আল্লাহর নির্দেশে হজরত ইব্রাহিম (আ.) তার সবচেয়ে প্রিয় বস্তু নিজ সন্তান হজরত ইসমাইল (আ.)-কে কোরবানি করার উদ্যোগ নেন। কিন্তু আল্লাহর কুদরতে হজরত ইসমাইল (আ.)-এর পরিবর্তে একটি দুম্বা কোরবানি হয়। হজরত ইব্রাহিম (আ.)-এর এই ত্যাগের মনোভাবের কথা স্মরণ করে প্রতিবছর মুসলমানরা কোরবানি করে থাকেন।

জিলহজ মাসের ১০ তারিখ পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হলেও ১০, ১১ ও ১২ তারিখের যে কোনো দিন পশু কোরবানি দেয়া যায়। সে হিসেবে বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবারও কোরবানি করা যাবে।

এবার ঈদ এসেছে এক ভিন্ন প্রেক্ষাপটে। করোনা মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশ আক্রান্ত। স্বজন হারানোর শোক এখনও তাজা রয়েছে হাজারো পরিবারে।

জীবন-জীবিকার প্রয়োজনে যারা রাজধানী ঢাকায় থাকেন, বুধবার ঈদ উদযাপনে তাদের অনেকেই পথের ভোগান্তি সয়ে, শত ক্লান্তি গায়ে মেখে ছুটে গেছেন গ্রামের বাড়িতে প্রিয়জনের কাছে। যদিও করোনাভাইরাস আতঙ্কে এবারও কিছুটা ভাটার টান পড়েছে ঈদ আনন্দে।

বিডি প্রভাত/জেইচ