আনোয়ারায় অগ্নিকান্ডে ৬টি দোকান পুড়ে ছাই, ৩ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

আনোয়ারায় অগ্নিকান্ডে ৬টি দোকান পুড়ে ছাই, ৩ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

শেখ আবদুল্লাহ, আনোয়ারা প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের ওয়াহেদ আলী চৌধুরী বাজারে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে সৃষ্ট অগ্নিকান্ডে ৬টি দোকান ভস্মীভূত হয়েছে।

বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) ভোর চারটার দিকে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে  ২টি কসমেটিক্স ও কম্পিউটারের দোকান, ১টি চায়ের দোকান, ১টি মুদির দোকান ও ১টি মুরগী এবং ইলেকট্রনিক্সের দোকান ও ১টি কুলিং কর্ণারের দোকান আগুনে ভস্মীভূত হয়।

প্রত্যক্ষর্দশীরা জানান, ভোর চারটার দিকে একটি কসমেটিক্সের দোকানের মিটার থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। যথাসময়ে বিদ্যুৎ বন্ধ না হওয়ায় এলাকাবাসীরা অনেক চেষ্টা করেও আগুন নেভাতে সক্ষম হয়নি। পরে ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। ততক্ষণে মোঃ হেলাল উদ্দীনের কসমেটিক্সের দোকান,মোঃ হারুনের চায়ের দোকান, মোঃ আয়ুবের মুদির দোকান, মোঃ ওসমানের মুরগী ও ইলেকট্রনিক্সের দোকান, মোঃ নাঈম উদ্দীনের কসমেটিক্স ও কম্পিউটারের দোকান এবং মোঃ দিদারের কুলিং কর্ণারের দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

স্থানীয় ফাহিম নামক এক যুবক বলেন, ওয়াহেদ আলী চৌধুরী বাজার জামে মসজিদের মাইক থেকে বাজারে আগুন লাগার বিষয়টি মাইকিং করলে আগুন নেভাতে আমরা দ্রুত ছুটে আসি। আগুন প্রথমে বৈদ্যুতিক মিটার থেকে ধরেছিল। তারপর সেখান হতে বৈদ্যুতিক তারে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। তখনও বিদ্যুৎ লাইন বন্ধ না হওয়ায় আমরা আগুন নেভাতে সামনে অগ্রসর হতে পারিনি। পরে বিদ্যুৎ লাইন বন্ধ হলে আমরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করি। কিন্তু আগুনে ছারখার হওয়া দোকানগুলোর মাঝে গ্যাস সিলিন্ডার থাকায় আমরা পুরোপুরি সক্ষম হয়নি।পরে ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

আনোয়ারা ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ দুলাল কুমার মিত্র জানান, অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই। আগুনে ৬টি দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এতে আনুমানিক ৩ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানান তিনি।

বিডি প্রভাত/আরএইচ