অগ্নি ঝুঁকিতে ঈদগাঁও বাজার, ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে নেই নির্বাপক যন্ত্র

অগ্নি ঝুঁকিতে ঈদগাঁও বাজার, ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে নেই নির্বাপক যন্ত্র

এম আবু হেনা সাগর, ঈদগাঁও: কক্সবাজারের ঈদগাঁও বাজারটি অগ্নি ঝুঁকিতে। নিরাপত্তার লক্ষে নেই অগ্নিনিবাপর্ক যন্ত্র ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠানে। ঘন দোকানপাঠে যেকোন মুর্হুতে অগ্নি দূর্ঘটনার আশংকা প্রকাশ করেন অনেকে। বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটলেও নেই প্রতিকারের ব্যবস্থা। 

জানা যায়, দক্ষিন চট্রলার বৃহৎ এ বানিজ্যিক কেন্দ্র ঈদগাঁও বাজারে বেশ কয়েকটি অগ্নি দূর্ঘটনা হলেও ৩৩ কিরোমিটার দূরবর্তী এলাকা কক্সবাজার কিংবা চকরিয়া থেকে ফায়ার সার্ভিস আসতে না আসতেই সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তারপরেও ব্যবসায়ীদের মাঝে সচেতনতা বলতে নেই।

তদারকির অভাবে ঝূঁকি জেনেও ব্যবসায়ীরা অগ্নি নির্বাপক ব্যবস্থা ছাড়া ব্যবসা বানিজ্য করে যাচ্ছেন। নবগঠিত ঈদগাঁও উপজেলার আলোচিত ঈদগাঁও বাজারসহ উপবাজার সমুহের প্রায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অগ্নি নিবার্পক যন্ত্র নেই। দেখার যেন কেউ নেই।

ঈদগাঁওতে কয়েক ব্যবসায়ীক প্রতিষ্টানে অগ্নি নিবার্পক যন্ত্র থাকলেও অধিকাংশ দোকানে এটির দেখা মিলছেনা। বাজার কমিটিসহ সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের তদারকির মাধ্যমে নিবার্পক যন্ত্রের ব্যবস্থা করার দাবী সচেতন মহলের। 

দেখা যায়, ঈদগাঁও বাজারের বিভিন্ন দোকানপাঠে  নির্বাপক যন্ত্র চোখে পড়ছেনা। দোকানদারদের খামখেয়ালীপনা বা অসচেতনতার কারনে এহের অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে। এ বিষয়ে ফায়ার সার্ভিস কতৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন অনেকে। 

ঈদগাঁও বাজার ব্যবসায়ী পরিচালনা পরিষদের সহ সাধারন সম্পাদক হাসান তারেকের সাথে কথা হলে তিনি দোকানপাঠে অগ্নি নিবার্পক যন্ত্রের বিষয়টি ফায়ার সার্ভিসের দায়িত্ব বলেও উল্লেখ করেন। 

ফায়ার সাভির্সের স্টেশন ইনচার্জ সেফায়েত হোসেন সাগর জানান, ঈদগাঁওতে পরপর বেশ কটি অগ্নি দূর্ঘটনা ঘটলেও ঈদগাঁও বাজারের ব্যবসায়ীদের মাঝে নেই কোন সচেতনতার লক্ষন।

নিরাপত্তার ক্ষেত্রে অগ্নি নিবার্পক যন্ত্র নেই দোকানপাঠে। ঘনবসতি পূর্ণ দোকানে অগ্নিকান্ড সংগঠিত হলে বহু দোকানপাঠ পুড়ে যাওয়ার আশংকাও করেন। তাই দূর্ঘটনা থেকে রক্ষাকল্পে দোকান পাঠে অগ্নিনিবার্পক যন্ত্র দরকার। 

বিডি প্রভাত/জেইচ

Spread the love